বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ব্যাটিং কোচ নেইল ম্যাকেঞ্জি অধ্যায়ের ইতি ঘটেছে। প্রায় দুই বছর টাইগারদের ব্যাটিং গুরু হিসেবে থাকার পর অবশেষে বিদায় নিয়েছেন তিনি।

বিসিবির সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করার কারন হিসেবে তিনি দেখিয়েছেন নিজের পরিবারকে সময় দেয়াকে। বৃহস্পতিবার (২১ আগস্ট) বিসিবিকে একটি চিঠি দেয়ার মাধ্যমে নিজের পদত্যাগের কথা জানিয়েছেন তিনি।

২০১৮ সালে সাদা বলের ক্রিকেটে টাইগারদের ব্যাটিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকার নেইল ম্যাকেঞ্জিকে। প্রাথমিকভাবে ২০১৯ সাল পর্যন্ত তার সাথে চুক্তি থাকলেও পরবর্তিতে আরও বেশ কিছুদিন দলের সাথে ছিলেন তিনি।

তবে মহামারী করোনা ভাইরাসের কারনে বেশ কিছুদিন আগেই নিজ দেশে পাড়ি জমান ম্যকেঞ্জি। এরপর আর বাংলাদেশে ফিরে আসার কথা ভাবেননি তিনি।

বাংলাদেশ দলকে বিদায় বলে দেয়ার ব্যাপারে ডেইলি স্টারকে ম্যাকেঞ্জি ক্ষুদে বার্তায় বলেন, ‘’আশা করছি, আপনারা সবাই ভালো আছেন। হ্যাঁ, আমি পদত্যাগ করেছি। একমাত্র কারণ হলো, আমাকে লম্বা সময় ধরে পরিবারের বাইরে থাকতে হচ্ছিল।

বর্তমান করোনাভাইরাস পরিস্থিতি, সামনের ব্যস্ত সূচী ও সকল সংস্করণে কাজ করা- সবমিলিয়ে আমার পরিবারের জন্য এটা কঠিন হয়ে পড়ছিল। টাইগারদের অংশ হতে পারায় আমার ভালো লেগেছে। বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য আমার হৃদয়ে সবসময় একটি কোমল জায়গা থাকবে এবং কাজ করতে পারায় আমি নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করি।‘’

বাংলাদেশ ম্যাকেঞ্জির দ্বিতীয় দল এমনটা আখ্যা দিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘’সত্যিই বাংলাদেশে আমার সময়টা খুব উপভোগ করেছি। বাংলাদেশের মানুষ সাদরে গ্রহণ করেছিল আমাকে।

খেলোয়াড়রা আমাকে খুব দ্রুত তাদের অংশ বানিয়ে ফেলেছিল। বাংলাদেশ আমার দ্বিতীয় দল।বিদায় বেলার কিছুদিন আগেই তিনি জানিয়েছিলেন লিটন দাসকে ঠিকভাবে পরিচর্যা করা হলে সে হয়ে উঠবে বিশ্বসেরা ওপেনার।‘’

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ দলের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের ব্যাটিং কোচ হিসেবে থাকলেও টেস্টেও দলকে সঙ্গ দিয়েছেন ম্যাকেঞ্জি। ক্রিকেটারদের শেখানোর ধরনের জন্য সবাই সাদরে গ্রহণও করেছিলেন এই প্রোটিয়াকে। ফলে ক্রিকেটারদের কাছে ভিড়তে পেরেছিলেন খুব অল্প সময়ের মধ্যেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *