বৌদির পরকীয়া দেখেছিলেন – দুই সন্তানের জননী প্রকাশি রানী দাস (২৮) পরকীয়া করতো স্থানীয় প্রভাবশালী জীবন দাসের সঙ্গে। পরকীয়ার ঘটনা জেনে যাওয়ায় প্রভাবশালী জীবন দাস রানীর স্বামীকে হুমকি দেয়। এই ক্ষোভে আর স্ত্রীর পরকীয়া সইতে না পেরে স্বামী রিপন চন্দ্র দাশ (৪০) রেললাইনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন।
ভিডিওটি দেখুন এখানে

ঘটনাটি ঘটেছে রাজধানীর উত্তরখানের আমাইয়া এলাকায়। গত ৬ মে রাত সাড়ে ৯টার রিপন চন্দ্র দাসের লাশ পাওয়া যায়। তিনি স্থানীয় কাঁচকুড়া বাজারে টেইলার্সের দোকানে কাজ করতেন।

নিহত রিপনের দুই মেয়ের মধ্যে একটি মেয়ে নবম শ্রেণিতে ও অন্যজন দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী। এই ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই শীতল চন্দ্র দাস বাদী হয়ে উত্তরখান থানায় অভিযোগ দিয়েছেন।

শীতল চন্দ্র দাস বলেন, ‘বৌদি এলাকার স্থানীয় প্রভাবশালী জীবন দাসের সঙ্গে পরকীয়া করতেন। আমার ভাই এই পরকীয়ার সম্পর্ক একদিন দেখেছিলেন। এরপর বৌদিকে বলেও কোনো সমাধান হয়নি। অপরদিকে ওই প্রভাবশালী জীবন দাস আমার ভাইকে বিভিন্ন সময় হুমকি দিতেন।

শীতল আরও বলেন, ধারণা করা হচ্ছে বৌদির পরকীয়া সহ্য করতে না পেরে তার বড়ভাই আত্মহত্যা করেছেন। তবে তাকে রেললাইনে ফেলে জীবন দাস হত্যা করে থাকতে পারেন বলেও সন্দেহ করছেন শীতল।

উত্তরখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হেলাল উদ্দিন বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে বোঝা যাচ্ছে ওই ব্যক্তি রেললাইনে আত্মহত্যার করেছেন। নিহতের লাশ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেছে পুলিশ। তবে নিহতের পরিবার বলছে পরকীয়াঘটিত ব্যাপারে তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *