চলমান ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) প্রথম জয়ের দেখা পেয়েছে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। আজ আবু ধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে স্রেয়াশ আইয়ারের দিল্লি ক্যাপিটালসকে ১৫ রানে হারিয়েছে তারা। এর আগের দুই ম্যাচে পরাজিত হয়েছিল ডেভিড ওয়ার্নারের নেতৃত্বাধীন দলটি।

এদিন হায়দরাবাদের দেয়া ১৬৩ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪৭ রান করতে সক্ষম হয় দিল্লি। হায়দরবাদের পক্ষে দুর্দান্ত বোলিং করেন ভুবনেশ্বর কুমার এবং রশিদ খান। ৪ ওভার বোলিং করে মাত্র ১৪ রান খরচায় ৩ উইকেট শিকার করেন আফগান রিক্রুট রশিদ। অপরদিকে ২৫ রানে ২ উইকেট নেন পেসার ভুবনেশ্বর।

দিল্লিকে টানা তৃতীয় জয় এনে অবশ্য যথেষ্ট চেষ্টা করেছিলেন ২৩ বছর বয়সী ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যান শিমরন হেটমায়ার। ১২তম ওভারে ব্যাটিংয়ে নেমে ২টি ছক্কার সাহায্যে ১২ বলে ২১ রান করেন তিনি। কিন্তু দলীয় ১০৪ রানের মাথায় মনিষ পান্ডের হাতে ক্যাচ বানিয়ে তাঁকে সাজঘরে পাঠান ভুবনেশ্বর।

হেটমায়ার ফিরলেও ক্রিজে আশার প্রদীপ হয়ে ছিলেন দিল্লির অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার মার্কাস স্টয়নিস। তবে বাঁহাতি পেসার থাঙ্গারাসু নটরজানের করা ১৮তম ওভারের পঞ্চম বলে এলবিডব্লিউয়ের শিকার হন তিনি। ফলে দিল্লির জয়ের সম্ভাবনা অনেকটাই ক্ষীণ হয়ে আসে।

পরবর্তীতে বাকি ব্যাটসম্যানরা আর তেমন সুবিধা করতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি ১৫ রানে হেরে মাঠ ছাড়তে হয় আইয়ারবাহিনীকে। দিল্লির হয়ে ৩১ বলে সর্বোচ্চ ৩৪ রান করেন ওপেনার শিখর ধাওয়ান। এছাড়া দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩২ রান আসে উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ঋশাভ পান্তের ব্যাট থেকে।

এর আগে ম্যাচটির শুরুতে টস জিতে হায়দরবাদকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানান দিল্লি অধিনায়ক আইয়ার। এরপর ব্যাটিংয়ে নেমে ইংলিশ ওপেনার জনি বেয়ারস্টোর হাফ সেঞ্চুরিতে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৬২ রান সংগ্রহ করে দিল্লি। একটি ছক্কা এবং ২টি চারের সাহায্যে ৪৮ বলে ৫৩ রান করেন বেয়ারস্টো।

হায়দরাবাদ অধিনায়ক ওয়ার্নও এদিন ছিলেন দারুণ ফর্মে। ২টি ছক্কা এবং ৩টি চারের সাহায্য মাত্র ৩৩ বলে ৪৫ রান করেন তিনি। দলের কিউই তারকা কেন উইলিয়ামসনের ব্যাট থেকে এসেছে ২৬ বলে ৪১ রানের আরেকটি ঝড়ো ইনিংস। এই রান করার পথে ৫টি চার মেরেছেন তিনি। দিল্লির বোলারদের মধ্যে প্রোটিয়া পেসার কাগিসো রাবাদা এবং লেগ স্পিনার অমিত মিশরা ২টি করে উইকেট নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ: ১৬২/৪ (২০ ওভার) (বেয়ারস্টো ৫৩, ওয়ার্নার ৪৫; রাবাদা ২/২১, মিশরা ২/৩৫)

দিল্লি ক্যাপিটালস: ১৪৭/৭ (২০ ওভার) (ধাওয়ান ৩৪, পান্ত ৩২; রশিদ ৩/১৪, ভুবনেশ্বর ২/২৫)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *